...

আরাফার রোজা কোনদিন

57 views

আরাফার রোজা কোনদিন আপনি সেদিনই আরাফার রোযা রাখবেন যার পরদিন আপনি কোরবানি করতে পারবেন।

শরীয়তে এটাই কাম্য। আপনার দেশের কোরবানির দিনের আগের দিনটিই আপনার জন্য ৯ জিলহজ।

আপনার ইয়াউমুল আরাফা। এর পরের দিনের নাম ইয়াউমুন নাহর। মানে কোরবানীর দিন। মাঝে একদিন বসে থাকার সুযোগ নেই। 

যেদিন রোযা সেদিন ফজর থেকে তাকবীরে তাশরীক শুরু করবেন। এখানেও একদিন বসে থাকার সুযোগ নেই।

শরীয়তে ইয়াউমুল কার ও ইয়াউমুন নাফর এবং আইয়ামে তাশরীক ইত্যাদি পরিভাষা বুঝতে হবে। আগে-পরে না ভেবে একটি বিধিবদ্ধ দিন পরিবর্তন করা মানে হজ ও কোরবানির সবগুলো দিন তারিখ এলোমেলো করে ফেলা। 

একটি মূলনীতি স্মরণ রাখলে বুঝতে সহজ হবে। যে সময়, দিন বা ক্ষণ আপনার সামনে আসেনি, অন্য কোথাও সে সময়, দিন, ক্ষণ এসে গেছে সংবাদ পেলে কিংবা লাইভ সম্প্রচার দেখতে পেলেও

আপনার উপর সে সময়কার আমল বা ইবাদতের বিধান জারি হবে না। যেমন, নামায রোযা ঈদ ও কোরবানির সময় ও ক্ষনের হুকুম।

???? মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী (হাফিঃ)

বনি ইসরাইলের তিন ব্যক্তি ও ফেরেস্তার ঘটনা

BloginfoBD

আমি মোঃ সজিব মিয়া । কাজ করছি Bloginfobd, FST Bazar, FST IT , FST Telecom ওয়েবসাইটে ।


Leave a Comment

Seraphinite AcceleratorOptimized by Seraphinite Accelerator
Turns on site high speed to be attractive for people and search engines.